ইসলাম শান্তির অগ্রযাত্রা

ইসলাম একটি পূর্ণাঙ্গ জীবন ব্যবস্থা


হযরত আদম (আ) থেকে হযরত মুহাম্মাদ (স.) পর্যন্ত পৃথীবীতে অসংখ্য নবি রাসূল আগমন করেছেন। তাঁরা প্রত্যেকেই নিজ নিজ যুগে নিজ নিজ জাতি ও দেশের মধ্যে সর্বশ্রেষ্ঠ জ্ঞানী ও গুণী বেক্তি ছিলেন। আল্লাহ তাঁদেরকে শুধু দ্বীন প্রচারের জন্যই প্রেরণ করেননি। তাঁদের অনেকেই আবার জগত বিখ্যাত ও ন্যায়পরায়ণ শাসক ছিলেন। প্রত্যেক নবি ও রাসূলের শরিয়াত ভিন্ন ভিন্ন থাকলেও দ্বীন ছিল ইসলাম। এই দ্বীন ইসলাম হযরত মুহাম্মাদ (স.) এর মাধ্যমে পরিপূর্ণতা লাভ করেছে। হযরত মুহাম্মাদ (স.) আখেরি নবি ও রাসূল। ইসলাম হচ্ছে সকল নবি রাসূলের শরিয়াতের নির্যাস। আল্লাহ তাআলা বলেন-

আমি সকল বিষয়ের সুস্পষ্ট বিবরণ দিয়ে এই গ্রন্থখানা অবতীর্ণ করেছি। সূরা(আন-নাহল ১৬. ৮৯) এ আয়াত দ্বারা স্পষ্ট করা হয়েছে যে , মানব জীবনে যা কিছু প্রয়োজন তার সব কিছুর নীতি নির্ধারণী বর্ণনা আল কুরআনে রয়েছে । মহানবি (স.) এর পবিত্র জীবনাদর্শ হচ্ছে আল কুরআনের ব্যাখ্যা। আল্লাহ তাআলা ইসলামকে পরিপূর্ণতা দান করে আয়াত নাযিল করেছেন। আল্লাহ তাআলা বলেন, আজ আমি তোমাদের জন্য তোমাদের দ্বীনকে পরিপূর্ণ করে দিলাম ও তোমাদের প্রতি আমার অনুগ্রহ পূর্ণ করলাম এবং দ্বীন হিসেবে ইসলাম কে তোমাদের জন্য মনোনীত করলাম। (সূরা আল মায়িদাহ-৫. ৩)

ইসলাম শান্তির ধর্ম

ইসলাম শান্তি ও সম্প্রতির ধর্ম। ইসলামে জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে সকল মানুষ সমান। ইসলামে কোন শ্রেণি বিভেদ নেই। আরব, অনারব, সাদা,কালো , ধনি- দরিদ্রের মধ্যে কোন পার্থক্য নাই। ঝগড়া- বিবাদ, গালি-গলাজ , চোগলাখুরি করা থেকে বিরত থাকার  নির্দেশ দিয়েছে ইসলাম। ইসলামে কোন কঠোরতা নাই।

আল্লাহ তাআলা সকল কাজ মানুষের সামর্থ্যের  মধ্যে রেখেছেন। ইসলামে কোন কিছু অস্পষ্ট নয় । আল্লাহ তাআলা মানুষের জন্য সব কিছু স্পষ্ট করে দিয়েছেন। আল-কুরআন ইসলামি শরিয়াতের মূল উৎস। ইসলাম একটি  পরিপূর্ণ জীবন ব্যবস্থা তাই ইসলামের ছায়াতলে আশ্রয় গ্রহন করা সকল মানুষের জন্য কল্যাণময়য়।

Leave a Comment: